পোস্টের কোড : 2079 48 পরিদর্শন

কেরালার এক মসজিদ কমিটি মসজিদে হিন্দু মেয়ের বিয়ে দিল

ধর্মের নামে মানুষকে বিভাজিত করার অভিযোগ উঠছে বর্তমান ভারতে। সেই আবহেই সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির সাক্ষী থাকল কেরালার আলাপুঝার চেরুভাল্লি মুসলিম জামাত মসজিদ। রবিবার এই মসজিদেই চার হাত এক হলো হিন্দু বর-কনের।

মসজিদ কমিটি আয়োজন করেছিলেন এই বিয়ের। সেই মতো সাজানো হয়েছিল মসজিদ। সেই মসজিদ চত্বরে হিন্দু মতে শরৎ এবং অঞ্জুর বিয়ে দিলেন এক পুরোহিত। উপস্থিত ছিলেন দুই সম্প্রদায়েরই অতিথি। তাদের জন্য ছিল কেরালার ঐতিহ্যবাহী নিরামিষ ভোজও। খবর আনন্দবাজারের।

অঞ্জুদের পরিবারের অর্থনৈতিক অবস্থা ভালো নয়। সেই কারণে মসজিদ কমিটির কাছে সাহায্য চেয়েছিলেন অঞ্জুর মা। মেয়ের বিয়ের আয়োজন করে দেওয়ার আর্জি জানিয়েছিলেন তিনি। মায়ের সেই আর্জিতে সাড়া দেন মসজিদ কর্তৃপক্ষ। অঞ্জুকে বিয়ের উপহার হিসেবে ১০টি স্বর্ণমুদ্রা এবং দু’লক্ষ টাকা দিয়েছেন তারা। হাজার লোকের খাওয়া-দাওয়ারও ব্যবস্থা করেছিল মসজিদ কমিটি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নবদম্পতি শরৎ এবং অঞ্জু, তাদের পরিবার এবং মসজিদ কমিটিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন কেরালার মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন। তার মতে, কেরালা সব সময়েই সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির এমন সুন্দর উদাহরণ বহন করে এসেছে। এটা বজায় রাখতে হবে। মুখ্যমন্ত্রী শরৎ-অঞ্জুর বিয়ের ছবি শেয়ার করে ক্যাপশনে লিখেছেন, এই বিয়ে এমন সময় হলো, যখন দেশে ধর্মের নামে মানুষের মধ্যে বিভাজন ঘটানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। কেরালা ঐক্যবদ্ধ ছিল এবং আমরা ঐক্যবদ্ধই থাকব।’

0
সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে শেয়ার করুন:
फॉलो अस
नवीनतम