পোস্টের কোড : 1998 12 পরিদর্শন

পাকিস্তানে শতকরা প্রায় ৩১ ভাগ সন্ত্রাসবাদ কমেছে

২০১৯ সালে পাকিস্তানে শতকরা প্রায় ৩১ ভাগ সন্ত্রাসবাদ কমেছে বলে গবেষণা সংস্থা সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড সিকিউরিটি স্টাডিজ এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে। এ প্রতিবেদনে বলা হয়েছে সন্ত্রাসবাদ কমার পাশাপাশি সন্ত্রাসীদের বহু ও আস্তানা ধ্বংস হয়েছে।

গত সোমবার গবেষণা প্রতিষ্ঠানটি তাদের বার্ষিক প্রতিবেদনে বলেছে, ২০১৯ সালে পাকিস্তানে সহিংসতায় শতকরা ৩০.৭১ ভাগ কমেছে। ২০১৮ সালে যেখানে পাকিস্তানে সহিংসতায় ৯৮০ জন নিহত হয়েছিল সেখানে ২০১৯ সালে ৬৭৯ জন মারা গেছে।

প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে- গোলযোগপূর্ণ বেলুচিস্তান প্রদেশে সবচেয়ে বেশি সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে। সেখানে ২২৬ জন নিহত হয়েছেন। তবে ২০১৮ সালে সহিংসতায় ওই প্রদেশে মারা গিয়েছিল ৪০৫ জন। সে হিসাবে বালুচিস্তানে সন্ত্রাসবাদ কমেছে শতকরা ৪৪.২ ভাগ।

পাকিস্তানের উপজাতি অধ্যুষিত পাহাড়ি এলাকাগুলোতেও সন্ত্রাসবাদ ব্যাপকভাবে কমেছে। এছাড়া, সিন্ধু প্রদেশে ২০১৮ সালে যেখানে সহিংসতায় ১২১ জন নিহত হয়েছিল সেখানে ২০১৯ সালে নিহতের সংখ্যা ছিল ৯৮। পাঞ্জাব প্রদেশে সহিংসতা কমেছে শতকরা ১১.৮৩ ভাগ যার ফলে ২০১৮ সালে সেখানে ৯৩ জন নিহত হলেও ২০১৯ সালে সহিংসতায় মারা গেছে ৮২ জন।

সন্ত্রাসবাদ সবচেয়ে বেশি কমেছে খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশে। সেখানে ২০১৮ সালে নিহত হয়েছিল ১৫৬ জন কিন্তু ২০১৯ সালে নিহত হয়েছে ১৪৮ জন। তবে রাজধানী ইসলামাবাদে সহিংসতার ঘটনায় ২০১৮ সালের চেয়ে ২০১৯ সালে বেড়েছে। ২০১৮ সালে ইসলামাবাদে নিহত হয়েছিল ছয়জন কিন্তু ২০১৯ সালে নিহত হয়েছে সাতজন। তবে গিলগিট-বালতিস্তান প্রদেশে উন্নতি হয়েছে সবচেয়ে বেশি। ২০১৮ সালে সহিংসতায় সেখানে নিহত হয়েছিল সাতজন কিন্তু ২০১৯ সালে সহিংসতায় কেউ নিহত হয় নি।

0
সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে শেয়ার করুন:
फॉलो अस
नवीनतम